কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠিতে ভাবগম্ভীর পরিবেশে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) পালিত হয়েছে।

বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব, বিশ্বমানবতার মুক্তির দিশারী, বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ মোস্তফা (সাঃ)-এর জন্ম এবং ওফাতের পবিত্র স্মৃতি বিজড়িত ১২ রবিউল আউয়াল ‘ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)’।

দিবসটি উপলক্ষে রোববার সকাল ৭টায় ঝালকাঠির ‘মুসলীম তৌহিদী জনতা’র ব্যানারে একটি র্যালী বের করা হয়েছে। র্যালীটি ঈদগাহ ময়দান থেকে বের হয়ে শহর প্রদক্ষিন করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। এরপর বাদ আছর থেকে ঈদগাহ ময়দানে শুরু হয় জিকির, ওয়াজ মাহফিল ও আলোচনা অনুষ্ঠান।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র ঝালককাঠি-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু এমপি।

সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশেষ নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জন্ম ও ওফাতের স্মৃতিবিজড়িত পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা এবং ওয়াজ নসীহত করেছেন আমন্ত্রীত অতিথিরা।

ঈদে মিলাদুন্নবীর মাহফিলে প্রধান বক্তা ছিলেন, বাংলাদেশ টেলিভিশনের আলোচক, নারায়নগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন জামে মসজীদের খতিব মাওলানা মুফতি আহামদ হোসেন গাজীপুরি। বিশেষ বক্তা ছিলেন, এনএস মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলনা গাজী শহিদুল ইসলাম ও কুতুবনগর আযীযিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মো. আব্দুল মান্নান।

আমিরুল মুসলীহীন মাওলানা খলিলুর রহমান নেছারাবাদী হুজুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি এসএম আক্তারুজ্জামান, ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী, পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সরদার মো. শাহআলম, সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, মহানবী হজরত মুহাম্মদ মোস্তফা (সাঃ) ছিলেন বিশ্বমানবতার জন্য আল্লাহর সর্বশ্রেষ্ঠ অনুগ্রহ। তাঁর জীবনদর্শনে ব্যক্তি, সমাজ ও রাষ্ট্র জীবনের সর্বোত্তম ও পরিপূর্ণ আদর্শ নিহিত রয়েছে। সমাজে শান্তি, সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য প্রতিষ্ঠায় প্রিয়নবীর প্রতি যেমন সর্বোচ্চ ভালোবাসা লালন করতে হবে তেমনি তাঁর সুমহান আদর্শ অনুসরণ, চর্চা ও প্রচার-প্রসারে সবাইকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি ন্যায়ভিত্তিক শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল সমাজ ও রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করে অনুসরনীয় নজীর স্থাপন করেন। তিনি জীবনাদর্শে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের যথাযথ অধিকার নিশ্চিত করে গেছেন। তাঁর জীবনের প্রতিটি দিকই তাই সকলের জন্য অনুসরণীয়। ব্যক্তি জীবন থেকে শুরু করে রাষ্ট্র পরিচালনা পর্যন্ত সকল ক্ষেত্রে তিনি সারা দুনিয়ার জন্য শ্রেষ্ঠতম আদর্শ ছিলেন। সর্বত্র রাসুলের (সাঃ) এর জীবনাদর্শ অনুসরণই সকল সমস্যার সমাধান নিহিত রয়েছে।

এ ছাড়া ঝালকাঠির বিভিন্ন স্থানে সরকারি বেসরকারি উদ্যোগে মসজিদ, মাদ্রাসা, ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান, বিপণী বিতানে খতমে কোরআন, দিবসের তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা, মোবারক র‌্যালী, ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে ঝালকাঠির জেলা-উপজেলা সদরে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) পালিত হয়েছে।অনুষ্ঠানে বয়ান, মিলাদ, ক্কিয়াম শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনাসহ বিশ্ব উম্মাহর শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।