কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠিতে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অভিযানে প্রায় আধা কেজি গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী কিবরিয়া খান (২৪), তার স্ত্রী হালিমা আক্তার লিজা (২৩) ও কিবরিয়ার মা মাসুমা বেগম মনি(৪৫) সহ ৩জনকে আটক রেছে।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় জেলার উত্তর সীমান্তবর্তী বেজগান ঝিলগাছ তলা মোড় থেকে মাদকের চালানসহ আটক করতে সক্ষম হয়েছে। এ বিষয়ে ডিবি পুলিশের পক্ষ থেকে ঝালকাঠি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী কিবরীয়া পিরোজপুর জেলার কাউখালি উপজেলার সাহাপুরা গ্রামের সাবেক মেম্বর মাসুদ খানের ছেলে ও হালিমা লিজা ঝালকাঠি সদর উপজেলার গুয়াটন গ্রামের মৃত ইমান আলীর মেয়ে। দীর্ঘ দিন ধরে কিবরিয়া খান মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত বলে স্থানীয় স‚ত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, নবাগত পুলিশ সুপার মোঃ আফরুজুল হক টুটুলের নির্দেশে জেলা জুড়ে মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার করার অংশ হিসাবে ঝালকাঠি জেলা জুড়ে ডিবি পুলিশ একাধিক টিম ব্যাপক অভিযান চালাচ্ছে। সেই অভিযানের ধারাবাহিকতায় ডিবির সাব ইন্সপেক্টর এইচ এম এ বাশারের নেতৃত্বে একটি মাদক উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে হানা দেয়।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা সদরের উপজেলার সীমান্তবর্তী বেজগান ঝিলগাছ তলা মোড়ে অবস্থান নেয়।

এ সময় আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী কিবরিয়া খান, তার স্ত্রী হালিমা ও মা মাসুমাকে দেখে ডিবি পুলিশের সন্দেহ হয়। এক পর্যায়ে পথরোধ করে তাদের দেহ তল্লাশী চালিয়ে গাজা উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে ডিবির ওসি মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, মাদক ব্যবসা নির্ম‚লের লক্ষে ঝালকাঠি ডিবি পুলিশের নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসাবে গাজাসহ আটক ৩জনের বিরুদ্ধে এসআই আবুল বাশার বাদী হয়ে মাদক নিয়ন্ত্রন আইনে ঝালকাঠি সদর থানায় মামলা (নং-২, তাং- ০৩/০১/২০২৩ ইং) দায়ের করা হয়েছে।

মামলার আইও এসআই সুবর্ণ চন্দ্র দে জানান, “মামলাটির তদন্তভার তার উপর অর্পন করা হয়েছে। মামলার তদন্ত চলমান রয়েছে। তদন্ত শেষে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।”