ঝালকাঠি বিএডিসির বিতরন কেন্দ্রে বোরো ধানের বীজ     

কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠি জেলায় আমন ধান কাটা শুরু না হলেও বোরো ধান চাষের প্রস্তুতি শুরু করেছে কৃষকরা। তারা বিএডিসির বীজ বিক্রয় কেন্দ্র ও ডিলারদের কাছ থেকে বিভিন্ন জাতের বীজ সংগ্রহ করে বীজতলা করতে নেমেছে।

ঝালকাঠি জেলায় এ বছর ১২৫০ হেক্টরে বোরো ধানের আবাদ লক্ষ্যমাত্রা দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৮০০ হেক্টরে হাইব্রিড ধানের আবাদ রয়েছে।

জেলা সদরের বিএডিসি বীজ কেন্দ্র থেকে বিক্রির জন্য বরাদ্দ দেয়া ৪ মেট্রিক টন বীজ ধান বিক্রি শেষ হয়েছে এবং জেলার ২৫ জন ডিলারের মাধ্যমে ৯৭ মে. টন বরাদ্দকৃত বীজ ধান বিক্রি হচ্ছে। ঝালকার্ঠি জেলার ৪টি উপজেলার মধ্যে সদর উপজেলা ও নলছিটি উপজেলা বোরো প্রধান।

এই দুই উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে জলাবদ্ধতার কারনে আমন ধানের আবাদ করা যায় না। ঝালকাঠি সদর উপজেলার বাসন্ডা ও বিনয়কাঠি এবং নলছিটি উপজেলার ভৈরবপাশা ও মগড় ইউনিয়নের ৩০ হাজার একর জুড়ে জলাবদ্ধতা থাকে। এই সকল ইউনিয়নের জলাবদ্ধ থাকা গ্রামগুলিতে কৃষকরা একমাত্র বোরো ধান ফসলের উপর নির্ভরশীল থাকে।

এই সকল গ্রামগুলি মধ্যে থাকা খাল এবং সংশ্লিষ্ট নদী অংশ ভরাট হওয়ায় পানি ওঠানামা করতে না পারায় পুরো বর্ষাকাল জুড়েই প্রায় ৫মাস এলাকাগুলির ফসলের মাঠ পানিতে তলিয়ে থাকে। শীতের প্রবাহ শুরু হওয়ার সাথে সাথে জলাবদ্ধ জমি থেকে পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে আগাছা পরিষ্কার করে এই সকল গ্রামগুলির কৃষকরা আগাম বোরো আবাদ নেমে যায়।