খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির পর এবার বাস ভাড়াও বাড়ানোর ঘোষণা আসলো।

শনিবার রাতে বাস মালিক সমিতি এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআরটিএ’র এক যৌথ সভা শেষে এই ঘোষণা দেয়া হয়।

বনানীতে বিআরটিএর কার্যালয়ে অংশীজনদের সঙ্গে বাস ভাড়া পুনঃনির্ধারণী বৈঠক শেষে এ ঘোষণা দেন সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী।

ঢাকা মহানগরে ১৬ শতাংশ এবং দূরপাল্লার বাসে ২২ শতাংশ বাস ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে।

নতুন নির্ধারিত ভাড়া হবে- দূরপাল্লার বাসে প্রতি কিলোমিটারে জনপ্রতি ভাড়া ১ টাকা ৮০ পয়সা থেকে ৪০ পয়সা বাড়িয়ে করা হয়েছে ২ টাকা ২০ পয়সা। নগর-মহানগরে বাসের ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে জনপ্রতি ২ টাকা ১৫ পয়সা থেকে ৩৫ পয়সা বাড়িয়ে করা হয়েছে ২ টাকা ৫০ পয়সা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে, মহানগরে প্রতি কিলোমিটার বাস ভাড়া বাড়বে ৩৫ পয়সা এবং দূরপাল্লার বাসে ভাড়া বাড়বে কিলোমিটার প্রতি ৪০ পয়সা।

এর ফলে দূরপাল্লার বাসে প্রতি কিলোমিটার ভাড়া হবে দুই টাকা ২০ পয়সা।

নতুন ভাড়া বৃদ্ধির ফলে ঢাকা শহরে প্রতি কিলোমিটার বাস ভাড়া হবে দুই টাকা পঞ্চাশ পয়সা। তবে সর্বনিম্ন বাস ভাড়া হবে দশ টাকা।

শুক্রবার ৫ আগস্ট মধ্যরাতে তেলের ব্যাপক মূল্যবৃদ্ধির পর শনিবার সকাল থেকে রাজধানী ঢাকা এবং দেশের বিভিন্ন জায়গায় বাস চলাচল অনেকটাই কমে যায়। কোথাও কোথাও বাস চলাচল বন্ধ করে দেন মালিকরা।

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির পর শুক্রবার মধ্যরাত থেকেই ঢাকাসহ দেশের অনেক এলাকায় বহু পেট্রলপাম্প বন্ধ রাখা হয়। ফলে তেলের অভাবে প্রায় ৭০ শতাংশ কম গণ-পরিবহন শহরের রাস্তায় নেমেছে বলে জানিয়েছেন যাত্রী এবং চালকেরা।

শুক্রবার মধ্যরাতের ঘোষণা অনুযায়ী ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটার প্রতি ৮০ টাকা থেকে ১১৪ টাকা করা হয়েছে। লিটার প্রতি পেট্রলের দাম ৮৬ টাকা থেকে ১৩০ টাকা করা হয়েছে। অকটেনের দাম বেড়েছে ৮৯ টাকা থেকে ১৩৫ টাকা।