মনজুর আহমদ, গোয়াইনঘাট : আইন-শৃঙ্খলাসহ সার্বিক পরিস্থিতিতে বিশেষ অবদান রাখায় জেলার শ্রেষ্ঠ সার্কেল গোয়াইনঘাট সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (এএসপি) প্রবাস কুমার সিংহ, শ্রেষ্ঠ ওসি কে এম নজরুল ও শ্রেষ্ঠ পরিদর্শক (তদন্ত) নির্বাচিত হয়েছেন গোয়াইনঘাটের ওমর ফারুক মোড়ল।

এ ছাড়াও শ্রেষ্ঠ উপ-পরিদর্শক (এসআই) হয়েছেন গোয়াইনঘাট থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই প্রলয় রায়, ইমরুল এবং শ্রেষ্ঠ এএসআই হয়েছেন জামাল উদ্দিন।

মঙ্গলবার (১০ মে) জেলা পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভায় পুলিশ হেড কোয়ার্টার প্রণীত অভিন্ন মানদন্ডের আলোকে এপ্রিল/২০২২খ্রিঃ ভালো কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ (সকল ক্যাটাগরি) জেলার সার্কেল, শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ, শ্রেষ্ঠ ওসি (তদন্ত), শ্রেষ্ঠ এসআই এবং শ্রেষ্ঠ এএসআই নির্বাচিত হওয়ায় তাঁদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন সিলেটের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম।

এ সময় জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

দেশব্যাপি এই প্রথম অভিন্ন মানদন্ডের ভিত্তিতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিবিড় পর্যালোচনায় আবারো টিম গোয়াইনঘাট সিলেট জেলার মধ্যে সকল ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্টত্ব প্রমাণ করলো।

এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল ইসলাম বলেন, অভিন্ন মানদন্ডের ভিত্তিতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিবিড় পর্যালোচনায় আবারো টিম গোয়াইনঘাট সিলেট জেলার মধ্যে সকল ক্যাটাগরিতে তাদের শ্রেষ্টত্ব প্রমাণ করলো। এই অর্জনের পিছনে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিবিড় তদারকীসহ গোয়াইনঘাট থানার প্রতিটি সদস্যের অক্লান্ত পরিশ্রম, কর্তব্যনিষ্ঠা এবং দায়িত্বের প্রতি তাদের আনুগত্য জড়িয়ে আছে। টিম গোয়াইনঘাটের সকল সদস্যদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানাই।

তিনি বলেন, যেকোন পুরস্কারই কাজে উৎসাহ বাড়ায়। পুরস্কারে মনোনিত করার জন্য সিলেট জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মহোদয়সহ উর্ধ্বতন সকল অফিসার মহোদয়গনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি।