রিয়াদ মাহমুদ সিকদার, কাউখালী প্রতিনিধি : পিরোজপুর কাউখালীতে অভাবী সংসারের হাল ধরতে বাবার পেশা খেয়া ঘাটের মাঝি হলেন স্কুল ছাত্রী মুনিরা।

কাউখালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চর বাসুরি আবাসনের বাসিন্দা মনির সরদারের মেয়ে ও কাউখালী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী হাফসা আক্তার মুনিরার পিতা মনির সরদার খেয়া পারাপার করে জীবিকা অর্জন করতেন।

হঠাৎ করে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে সংসারে আর কোন আয়ের ব্যবস্থা না থাকায় বাধ্য হয়ে তার স্কুল পড়ুয়া মেয়ে মুনিরা বর্তমানে পিতার খেয়া পারাপারের নৌকার হাল ধরে জীবিকা অর্জন করে সংসার চালায়।

স্কুলে যাওয়া ও লেখাপড়ার ফাঁকে ফাঁকে সে খেয়া পারাপার করে। এতে করে মুনিরার লেখাপড়ার চরম বিঘ্ন ঘটছে।

অভাবী সংসারে উপার্জন করার আর কেউ না থাকায় বাধ্য হয়ে মুনিরা খেয়া নৌকা মাঝি হলেন।

মনিরা বলেন, আমি লেখাপড়া করে মানুষের মতো মানুষ হয়ে নিজেকে মানব সেবায় নিয়োজিত করব।

মুনিরার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনির মোল্লা জানান, মেয়েটি লেখাপড়ায় খুবই মনোযোগী। আমরা বিদ্যালয় থেকে সকল প্রকার সুযোগ-সুবিধা দিয়ে থাকি।

কাউখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ খালেদা খাতুন রেখা বলেন, আমার নজরে এসেছে। সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে।