জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরে বন্যা পরিস্থিত উন্নতি হয়েছে। দ্রুত গতিতে কমছে যমুনার পানি। গত ২৪ ঘন্টায় যমুনার পানি ৪৫ সেন্টিমিটার হ্রাস পেয়ে বিপৎসীমার ৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অন্যন্য নদনদীর পানিও কমছে সমান তালে জানিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাঈদ।

জেলার বন্যা দুর্গত এলাকাগুলোতে পানি কমতে শুরু করলেও বেড়েছে দূর্ভোগ।বাড়ী ঘর থেকে এখনো পানি নামেনি। বানভাসীদের বাড়িঘরে ফিরতে আরো দু’একদিন সময় লাগবে। হাতে কাজ নেই, ঘরে মওজুদকৃত খাবারও পানিতে ভেসে গেছে। তাই খাদ্য সংকট ও বিশুদ্ধ পানির অভাবে চরম দূর্ভোগের মধ্য দিয়ে দিন কাটছে বানভাসীদের।

জেলা প্রশাসনের বরাদ্ধকৃত ত্রান চাহিদার তুলনায় খুবই অপ্রতুল। ত্রানের আশায় এদিক সেদিকে ছুটাছুটি করছে বানভাসী মানুষজন।

ত্রানের কোন সংকট নেই, পর্যাপ্ত ত্রান মওজুদ রয়েছে জানালেন জামালপুরের জেলা প্রশাসক শ্রাবন্তি রায়।

তিনি আরো জানান, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সরকারিভাবে জেলায় ৪৭০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। পর্যাপ্ত ত্রাণ এখনো মজুদ রয়েছে।