তৌহিদ চৌধুরী প্রদীপ, জামালগঞ্জ (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা সিদ্দীকা (রা.)-কে নিয়ে ভরতে কটূক্তির প্রতিবাদে জামালগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বনবী মুহাম্মদ সাঃ কে নিয়ে ভারতের বিজেপি মুখপাত্র ‘নুপুর শর্মা’ ও দিল্লির গণমাধ্যম শাখার প্রধান ‘নবীন কুমার জিন্দাল’ এর কটুক্তির প্রতিবাদে ও বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা জানানোর দাবিতে রবিবার দুপুরে আল এহসান ইসলামী যুব সংঘ ও এলাকার সর্বস্তরের তৌহিদী জনতার ব্যানারে জামালগঞ্জ উপজেলার প্রধান সড়কে শান্তিপুর্ন বিক্ষোভ মিছিল করেন।

আটগাও হাজী পাড়া মহিলা মাদ্রাসার পরিচালক মাওঃ আব্দুল গফ্ফার’র সভাপতিত্বে মাওঃ মামুনুর রশিদ জসীম ও সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ শাহান শাহর উপস্থাপনায় বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী ‘উপজেলা পরিষদ গেইটের সামনে বক্তব্য রাখেন, আবাবিল নুরানী একাডেমির পরিচালক মাওঃ আব্দুল্লাহ আলমগীর, আল এহসান ইসলামী যুব সংঘের সভাপতি মোঃ রাসেল চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তারা বলেন বাংলাদেশ একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এদেশে যুগযুগ ধরে হিন্দু মুসলিমের সহাবস্থান বিদ্যমান। কিন্তু ভারতে মহানবী স.কে কটুক্তি করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা উস্কে দিয়ে একটি নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি তৈরি করছে। অবিলম্বে সংসদে নিন্দা প্রস্তাব এনে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানিয়ে নব্বইভাগ মুসলমানের ক্ষোভ শান্ত করার আহবান জানান। নুপুর শর্মা ও জিন্দালের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করে ভারতকে বিশ্ববাসীর সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানান।

মহানবী স. এর মোহাব্বত ও ভালবাসা প্রতিটি মুসলমানের হৃদয়ে প্রোথিত উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ বলেন বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-কে নিয়ে অপমানজনক বক্তব্য কেনো মুসলমান বরদাশত করতে পারে না। নুপুর শর্মা ও জিন্দালের ফাঁসীর দাবী জানা তারা।

সর্বশেষে সভাপতির দোয়ার মাধ্যমে বিক্ষোভ মিছিলের সমাপ্তি ঘোষণা হয়।