তৌহিদ চৌধুরী প্রদীপ, জামালগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ নৌ-পথে চাঁদাবাজিকালে ট্রলারসহ দুই চাঁদাবাজকে আটক করা হয়েছে।

উপজেলার ফেনারবাঁক ইউনিয়নের গজারিয়া-আলীপুর গ্রামের মধ্যবর্তী ধনু নদীতে কয়লা, বালু ও পাথর বোঝাই বাল্ক-হেড নৌকা আটকিয়ে চাঁদাবাজি করার সময় একটি ট্রলারসহ ২ চাঁদাবাজকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃত চাঁদাবাজরা হলো, উপজেলার ফেনারবাক ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের মৃত লতিফ ফকিরের ছেলে রমজান আলী (৩৫) ও পার্শ্ববর্তী নেত্রকোনার খালীয়াজুরী উপজেলার চাকুয়া ইউনিয়নের লেপসিয়া গ্রামের মো.রুবেল মিয়ার ছেলে মনির হোসেন (২৫)।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার আলীপুর গ্রাম সংলগ্ন ধনু নদীতে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় জনতার সহযোগীতায় একটি ছোট ইঞ্জিন চালিত ট্রলারসহ ওই দুই চাঁদাবাজকে আটক করেছে জামালগঞ্জ উপজেলার মান্নান ঘাট নৌ-ফাঁড়ির পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, জেলার তাহিরপুরের ফাজিলপুর, টেকেরঘাট ও বড়ছড়া থেকে কয়লা, পাথর ও বালু বোঝাই করে প্রতিদিন শত-শত বাল্ক-হেড নৌকা ওই নৌ-পথে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে থাকে। এরই সুযোগে এ নৌ-পথের বিভিন্ন নির্জনস্থানে চাঁদাবাজরা ওইসব মাল বোঝাই নৌকা আটকিয়ে তারা প্রতি নৌকা থেকে জোরপূর্বক ১ থেকে ২ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করে আসছিল।

এ অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরে রমজান আলী ও মনির হোসেন নামে ওই দুই চিহ্নিত চাঁদাবাজ একটি ছোট ইন্জিন চালিত নৌকা নিয়ে মাল বোঝাই নৌকা আটকিয়ে চাঁদাবাজি করছিল।

স্থানীয়দের এমন সংবাদের ভিত্তিতে মান্নানঘাট নৌ-ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ এসআই মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে নদীতে চাঁদাবাজির কালে চাঁদাবাজদের ট্রলারসহ ওই দুই চাঁদাবাজকে আটক করে নিয়ে আসে।

মান্নানঘাট নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মুজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক দুই চাঁদবাজের নামে একটি নিয়মিত মামলা দায়েরের পর বুধবার সকালে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হবে।