জামালগঞ্জ (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার শনি রউয়া জলমহালে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার (১২ নভেম্বর) রাতের কোনও এক সময় মাছের অভয়াশ্রম শনি রউয়া জলমহালে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিষ প্রয়োগে নানা প্রজাতির অসংখ্য ছোট বড় দেশী মাছ মরে পানিতে ভেসে উঠেছে। স্থানীয়রা জানান, জাল টেনে দেখা গেছে অনেক বড় বড় মাছ মরে পানির নিচে তলিয়ে গেছে আবার বহু মাছ পানিতে ভেসে গেছে।

তথ্য নিয়ে জানা যায়, গত ১৪২৭ বাংলা সনের শুরুতে উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের শনি রউয়া জলমহালটি হাওরিয়া আলীপুর গ্রামের ইশান মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি লিমিটেড’কে ৩ বছরের জন্য লিজ দেয় জেলা কালেক্টর অফিস। লিজ নেয়ার পর থেকেই ইজারাপ্রাপ্ত সমিতির লোকদের বিরুদ্ধে লেগে যায় একটা মহল।

এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্যজীবী আয়নাল হক জানান, এই সময়টা বিল থেকে মাছ আহরণের ভরা মৌসুম। পানি শুকানোর সঙ্গে সঙ্গে প্রাকৃতিকভাবে বিলে অনেক মাছ আসে। তখন আশ্রয় নেওয়া বিলগুলো মাছের ভাণ্ডারে পরিণত হয়।

আয়নাল হক আরো জানান, আমরা গত বছর মাছ না ধরে পাইল দিয়ে রেখেছি মাছের অভয়াশ্রম হিসেবে। এবছর ভালো মাছ পাবো এই আশায় মাছের খাদ্য, বাঁশ,কাটা ও পাহারাদারসহ কয়েক লাখ টাকা খরচ হয়েছে। এই বিলে (জলমহালে) বিষ প্রয়োগের ফলে মাছ মরার পাশাপাশি ১ কিলোমিটারের আশেপাশে কোন মাছ থাকবেনা বলেও জানান তিনি।

জলমহাল সংলগ্ন বেহেলী ইউপি চেয়ারম্যান সুব্রত সামন্ত সরকার বলেন বিষয়টি আমি শুনেছি। সরেজমিনে তদন্ত করে ইউএনও মহোদয়কে অবহিত করবো।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা সুনিল মন্ডলের মুঠো ফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ না করায় বক্তব্য জানা যায়নি।