মনজুর আহমদ, গোয়াইনঘাট : সিলেটের গোয়াইনঘাটে জাফলং ডাউকি নদীতে পাথর তুলতে গিয়ে বিলাই বোমার আঘাতে এক বারকি শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ওই বারকি শ্রমিকের নাম পলাশ আহমেদ (১৬)। সে সুনামগঞ্জের মধ্যনগর থানার জাতীয়পাড়া এলাকার মঙ্গল মিয়ার ছেলে।

বারকি শ্রমিকের কাজ করার সুবাদে পলাশ আহমেদ তার বাবা-মা ও পরিবার পরিজনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জাফলংয়ের মেলার মাঠ এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিল।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার (১০ এপ্রিল) সকালে পলাশ আহমেদ ও তার সহোদর ভুট্টো মিয়াসহ কয়েকজন বারকি শ্রমিক জাফলংয়ের জুমপার এলাকা সংলগ্ন ডাউকি নদী থেকে পাথর উত্তোলনের কাজে যায়। কাজ করার একপর্যায়ে বিকেল বেলা পলাশ আহমেদ ডুবিয়ে পাথর তুলতে পানিতে নামে। যার একপর্যায়ে
পলাশ আহমেদ পাথর সংগ্রহের জন্য পানিতে ডুব দিলে অসাবধানতা বশত বিলাই বোমা মেশিনের পাখায় লেগে ঘটনাস্থলেই তার মৃৃৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানার এস আই লিটন রায় ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠান।

এ দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল আহাদ। পরিদর্শন শেষে দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।