শরীয়তপুর প্রতিনিধি : জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে জাজিরার সেনেরচর চরধুপুর বালিয়াকান্দি গ্রামে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষের বাড়িঘরে হামলা করে ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে।

তবে চেয়ারম্যানের দাবী তার সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য একটি চক্র তার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। পুলিশ জানিয়েছেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এই বিষয়ে জাজিরা থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জালাল জমাদ্দার প্রতিবেশি মনির ফরাজীর চাচা মৃত্যু নুরু ফরাজীর স্ত্রী বিউটির কাছ থেকে ১৫ শতাংশ জমি ক্রয় করে। সেই জমি ভোগ দখল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চেয়ারম্যানের সাথে মনির ফরাজী ও আমির ফরাজী গংদের সাথে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এরই জেরে গত রোবার দুপুরে চেয়ারম্যানের লোকজন মনির ফরাজীদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ৫টি বসত ঘর, ঘরে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর ও লুট করে করে বলে অভিযোগ ক্ষতিগ্রস্থ আমির ফরাজির।

আমির ফরাজী বলেন, চেয়ারম্যান জালাল জমাদ্দারের হুকুমে ২০/২৫ জন লোক বাড়িতে এসে তাকে মামলা তুলে নিতে বলে। মামলা তুলে নিতে অস্বীকার করায় প্রথমে তাকে ধাওয়া করে। সে ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে হামলাকারীরা তার ঘরসহ অপর ভাই মনির ফরাজী, আনোয়ার ফরাজী, জালাল ফরাজী ও নাসির ফরাজীর ঘর কুপিয়ে ও ঘরে ঢুকে আসবাবপত্র ভাংচুর সহ নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নেয় হামরাকারীরা। আমি ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশের সহায়তা গ্রহণ করি।

চেয়ারম্যান জালাল জমাদ্দার বলেন, তিনি জমি ক্রয় করে ভোগ দখলে রয়েছেন। তার লোকজন মনির ফরাজীদের বাড়িতে কোন হামলা চালায়নি। তার সম্মান নষ্ট করার জন্য এই মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে।

জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।