খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : ছুটির আবেদন করেছিলেন কিন্তু সে আবেদন মঞ্জুর হয়নি। উল্টো তাকে পাঠিয়ে দেয়া হয় প্রশিক্ষণে। সেই মানসিক অবসাদে দুই কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করলেন টিএসআর (TSR) সিপাহী।

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে শনিবার সকালে এ ঘটনাটি ঘটে ত্রিপুরার (Tripura) টিএসআর ক্যাম্পে।

সিপাহীর গুলিতে ঝাঁঝরা হয়েছেন দুই টিএসআর কর্মকর্তা। গুলিবিদ্ধ হয়ে একজনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। অপরজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পর চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। সিপাহী জলা জেলার এই মর্মান্তিক ঘটনার ঘাতক সিপাহী অস্ত্র-সহ থানায় আত্মসমর্পণ করে।

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেব এ ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি নিহতদের পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য ঘোষণা করেছেন তিনি।

পুলিশ সূত্রে খবর, এদিন সকাল সাড়ে ন’টা নাগাদ কোনাবন গ্যাস গেদারিং স্টেশনে টিএসআর রাইফেল ম্যান সুকান্ত দাস এলোপাথারি গুলি ছুড়তে থাকে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সুবেদার মার্কা সিং জমাতিয়ার। আরেক টিএসআর নায়েক সুবেদার কিরণ জমাতিয়াও গুলিবিদ্ধ হন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে জানান, পথেই তাঁর মৃত্যু হয়।

ঘাতক অ্যাসল্ট রাইফেল ম্যান সুকান্ত দাসের স্ত্রী মল্লিক আরিয়ান পুলিশ কনস্টেবল পদে আরকে থানায় কর্মরত।

সম্প্রতি সুকান্ত দাস ছুটির আবেদন জানিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর আবেদন মঞ্জুর হওয়ার বদলে তাঁকে প্রশিক্ষণে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

মনে করা হচ্ছে, ছুটির আবেদন মঞ্জুর না হওয়ায় প্রচণ্ড মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। যার ফলে এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। দুই কর্মকর্তাকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে বাইক চালিয়ে মধুপুর থানায় গিয়ে অস্ত্র-সহ আত্মসমর্পণ করেন সুকান্ত দাস। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে। ছুটি নিয়ে বিবাদের জেরে এই হত্যালীলা সংঘটিত হয়েছে না অন্য কারণ লুকিয়ে রয়েছে তদন্ত শুরু হয়েছে।