চট্টগ্রাম ব্যুরো : শিক্ষার্থীদের টানা আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার পর চট্টগ্রামসহ সব শহরে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ ভাড়া কার্যকরের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। হাফ ভাড়ার এ সিদ্ধান্ত আগামী ১১ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

রোববার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন সমিতির কেন্দ্রীয় মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ।

তিনি বলেন, সরকারি ছুটির দিন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটির দিন ব্যতীত এ নিয়ম চলবে। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এ সুবিধা পাবেন। শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্ম ও পরিচয়পত্র প্রদর্শন করতে হবে।

এনায়েত উল্লাহ বলেন, যেসব শহরে সিটি সার্ভিস চালু আছে, সেখানে এটা কার্যকর হবে। উপজেলা বা দূরপাল্লার রুটে এ নিয়ম চলবে না।

সরকার বাসের ভাড়া বাড়ানোর পর থেকে শিক্ষার্থীরা আগের মত অর্ধেক ভাড়া দেওয়ার দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। প্রতিদিনই তারা বিভিন্ন এলাকায় সড়ক আটকে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে। গত ২৪ নভেম্বর সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের এক শিক্ষার্থী এবং ২৯ নভেম্বর রাতে রামপুরায় বাসের চাপায় এক এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হওয়ায় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ আরও বাড়ে।

ঢাকা পরিবহন মালিক সমিতি মঙ্গলবার সকালে সংবাদ সম্মেলন করে শিক্ষার্থীদের ‘হাফ’ ভাড়ার দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেয়। কিন্তু বিকালে তা প্রত্যাখ্যান করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন নয় দফা দাবিতে আন্দোলনে থাকা শিক্ষার্থীদের একটি দল। তাদের এ দাবির মধ্যেই সব মহানগরে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।