আব্দুর রাজ্জাক, মানিকগঞ্জ : সারা দেশে সোমবার অর্ধশত দৃষ্টিনন্দন মডেল মসজিদ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যে মানিকগঞ্জের দুটি মসজিদ রয়েছে ঘিওর ও সাটুরিয়া উপজেলায়।

এ উপলক্ষ্যে সোমবার বেলা এগারোটার দিকে এই মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শুক্লা সরকার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আলিম মিন্টু, ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর কর্মকর্তাবৃন্দসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তিনতলাবিশিষ্ট দৃষ্টিনন্দন মসজিদটিতে রয়েছে সুউচ্চ মিনার। প্রথম থেকে দ্বিতীয় তলায় ওঠার বিশাল সিঁড়ি। ১৭০ ফুট লম্বা ও ১১০ ফুট প্রস্থ ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩ তল বিশিষ্ট এই মসজিদের নির্মান কাজে ব্যয় হয়েছে । প্রায় ৯ শতাধিক মুসল্লী এক সাথে নামাজ আদায় করতে পারবেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনে উদ্যোগে বাস্তবায়ন হবে মডেল মসজিদের সকল প্রকার কার্যক্রম।

এ ছাড়া রয়েছে প্রতিবন্ধী মুসল্লিদের শৌচাগারসহ নামাজের পৃথক ব্যবস্থা, ইসলামিক লাইব্রেরি, ইসলামিক বই বিক্রয় কেন্দ্র, অটিজম কর্নার, ইমামদের ট্রেনিং সেন্টার, ইসলামিক গবেষণা ও দ্বিনি দাওয়া কার্যক্রম, পবিত্র কোরআন হেফজখানা, শিশু ও গণশিক্ষার ব্যবস্থা, দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আবাসন ও অতিথিশালা, মরদেহ গোসল ও কফিন বহনের ব্যবস্থা, হজ যাত্রীদের নিবন্ধনসহ প্রশিক্ষণ, ইমামের প্রশিক্ষণ, ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসন ও গাড়ি রাখার ব্যবস্থাসহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অফিসের ব্যবস্থা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুর রহমান বলেন, এই মসজিদ নামাজ আদায়ের পাশাপাশি ইসলামিক জ্ঞানচর্চার কেন্দ্রও হবে। এখানে ইসলামের প্রকৃত দীক্ষা গ্রহণকারী কোনো ব্যক্তি- সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত হবেন না। সামাজিক অবক্ষয় ও অন্যায় কাজ থেকে দূরে রাখতে এই মডেল মসজিদটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।