কুমিল্লা সংবাদদাতা : কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে শিশুসহ কমপক্ষে ৩৯ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার মৌকরা ইউনিয়নের বিরুলিয়া গ্রামে আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের জেলা সদর ও কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা দেব দাস দেব বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার বিরুলিয়া গ্রামের একটি বাড়িতে গ্যাসের সিলিন্ডার থেকে গ্যাস ভরে বেলুন ওড়ানোর চেষ্টা করে একদল যুবক। গ্রামের মানুষ সেখানে ভিড় জমান। এ সময় হঠাৎ সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ ঘটে। আহতদের অনেকের মাথা ও চোখ থেঁতলে গেছে। সিলিন্ডারের বিকট আওয়াজে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা দেব দাস দেব জানান, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত ৩৯ জন নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। তবে ৩০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদেরকে কুমিল্লায় রেফার করা হয়েছে। এখন এ হাসপাতালে ৩ জন রোগী ভর্তি আছেন।

নাঙ্গলকোট থানার ওসি মো. ফারুক হোসেন জানান, বিরুলিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেন বেলুনের ব্যবসা করেন। তিনি বেলুনে গ্যাস ভর্তি করছিলেন। এ দৃশ্য দেখতে ও বেলুন ক্রয়ের জন্য লোকজন ওই বাড়িতে জড়ো হয়। হঠাৎ গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ঘটে এবং আনোয়ার হোসেনসহ ৩৯ জন আহত হয়েছেন। তাদেরকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।