গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি : গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম সাময়িক বরখাস্ত হওয়ার পর ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পেলেন এক নম্বর প্যানেল মেয়র মো. আসাদুর রহমান কিরণ।

জাহাঙ্গীর আলমকে মেয়রের পদ থেকে বরখাস্তের পাশাপাশি তিন সদস্যের প্যানেল মেয়র বোর্ডও নির্বাচিত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

সিটি নির্বাচনের পরই প্যানেল মেয়র নির্বাচনের বিধান থাকলেও একক কর্তৃত্ব বজায় রাখতে জাহাঙ্গীর আলম সেই নিয়ম মানেননি এমন অভিযোগ করে আসছিলেন ওয়ার্ড কাউন্সিলররা।

মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বহিষ্কার, প্যানেল মেয়র নির্বাচন ও এক নম্বর প্যানেল মেয়র টঙ্গী জোনের ৪৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আসাদুর রহমান কিরণের ভারপ্রাপ্ত মেয়র হওয়ার বিষয়টি বৃহস্পতিবার স্থানীয় সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম।

এর আগেও গাসিকের প্রথম মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান বরখাস্ত হলে আসাদুর রহমান কিরণ দীর্ঘ সময় ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন। আসাদুর রহমান কিরণ মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবং বিলুপ্ত টঙ্গী পৌরসভা থেকে শুরু করে বর্তমান গাজীপুর সিটি করপোরেনে টানা ৫ বার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।

এদিকে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলম বহিষ্কার হওয়ার পর তার স্থলে এ পদে মো: আতাউল্লাহ মন্ডলকে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি মহানগর আওয়ামী লীগের এক নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্তে এক পত্র গাজীপটুর মহানগর আওয়ামী লীগ নেতাদের হস্তগত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আজমত উল্লা খান।

উল্লেখ্য, গত ১৯ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করার দায়ে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একইসাথে বৈঠকে জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ারও নির্দেশ দেয়া হয়।