নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে হট্টগোল তৈরি হয়েছে।

রোববার (৩০ জুলাই) দুুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ ঘটনা ঘটে।

চরফকিরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জায়দল হক কচি বলেন, সেতুমন্ত্রীর ভাগনে রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সিরাজীস সালেকীন রিমন দীর্ঘ এক মাস ধরে অভিযোগ করে আসছেন তার পার্শ্ববর্তী মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আইযুব আলীর যোসসাজশে মুছাপুর ক্লোজার সংলগ্ন ছোট ফেনী নদী থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। আজকের আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় একই অভিযোগ তুলে ধরেন রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সিরাজীস সালেকীন রিমন।

একপর্যায়ে মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আইযুব আলী এ বিষয়ে কথা বলতে গেলে এতে করে দুই ইউপি চেয়ারম্যানের মধ্যে বাদানুবাদ হয়। একপর্যায়ে তা হট্টগোলে রূপ নেয়। পরে তাৎক্ষণিক বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো.মেজবাউল আলম ভূঁইয়া বিষয়টি সমাধান করে দেন।

এ বিষয়ে জানতে বিকেল ৪টা ২৩ মিনিটের দিকে রামপুর ইউনিয়ন ইউনিয়ন পরিষ চেয়ারম্যান সিরাজীস সালেকিন রিমনের মুঠোফোনে কল করা হলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। একই বিষয়ে জানতে মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আইযুব আলীর ফোনে কল করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো.মেজবাউল আলম ভূঁইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,পরবর্তীতে কথাবার্তা বলে আমরা বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি।