আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদের খতিব আওলাদে রাসুল সাইয়্যেদ আনোয়ার হোসাইন তাহের জাবেরী আল মাদানী বলেছেন, মহাগ্রন্থ আল কোরআন কোন সাধারণগ্রন্থ নয়। এটা আল্লাহ তায়ালা প্রদত্ত একটি ঐশিগ্রন্থ। কোরআন শুধু একটি গ্রন্থ নয় এটি মানব জাতির জীবন পরিচালনার একটি গাইড লাইন।

তিনি বলেন, এই মহাকিতাবের সাথে যারা বেয়াদবী করেছে তারা সকলেই ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্তি হয়েছে। ভবিষ্যতেও যারা এই কোরআনের সাথে বেয়াদবী করবে তারা ধ্বংস হয়ে যাবে। এতে কোন সন্দেহ নেই।

তিনি আরো বলেন, আল্লাহ প্রদত্ত এই কিতাবকে পরিপূর্ণভাবে মানতে হবে। কিছু মানবে আর কিছু মানবে না তা গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি মানব জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে কোরআনের আদলে পরিচালনা করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান।

রোববার সন্ধ্যায় বাঁশখালী উপজেলার পুকুরিয়ায় ২ দিনব্যাপী সীরাতুন্নবী (সা:) ও আন্তর্জাতিক কেরাত সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির আলোচনায় আওয়ালাদে রাসুল সাইয়্যেদ আনোয়ার হোসাইন তাহের জাবেরী আল মাদানী উপরোক্ত কথা বলেন।

নতুন পাড়া মসজিদ এ মদিনা ও সিরাজুল ইসলাম মাদরাসা মাঠে পটিয়া মাদরাসার প্রধান ক্বারী মাওলানা আবদুস ছামাদের সভাপতিত্বে চট্টগ্রামের আরব প্রপার্টিজলি: এ ব্যবস্থাপনায় মাহফিলের শুভ উদ্বোধন করেন মসজিদে মদিনা ও সিরাজুল ইসলাম মাদরাসার পরিচালক আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইলিয়াছ। মাহফিলে প্রধান মেহমান ছিলেন পটিয়া মাদরাসার প্রধান মুফতি হাফেজ আহমদুল্লাহ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন পীরে কামেল হযরত মাওলানা মুহাম্মদ ইসহাক। বিশেষ ওয়ায়েজীনছিলেন পতেঙ্গা আলীয়া মাদরাসার অধ্যাপক মাহমুদুল হাসান ও হাফেজ মুফতি মো: কালীমুল্লাহা ও হাফেজ মাওলানা নূর আহমদসহ দেশবরণ্য ওলামা-মাশায়েখগণ।

সমাপনী দিবসে আন্তর্জাতিক কেরাত সম্মেলনে কেরাত পরিবেশন করেন মিশরের ক্বারী শাইখ ছমির আনতাম মুসাল্লাম, মিশরের ক্বারী শাইখ সালাম মুহাম্মদ সোলাইমান, তানজানিয়ার ক্বারী শাইখ ঈদী শাবান, পটিয়া জমিরিয়া মাদরাসার ক্বারী শাইখ আহমদুলহক ও ক্বারী শাইখ আব্বাস প্রমুখ।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, বাংলাদেশ একটি মুসলিমরাষ্ট্র। মুসলিম রাষ্ট্রে ইসলাম অবমাননা হবে তা আমরা সহ্য করবো না। ইসলামের বিধানগুলো বাস্তবায়ন করা সরকারের নৈতিক দায়িত্ব। তিনি সকল সম্প্রদায়ের লোকদের জন্য ইসলামে যে শিক্ষা রয়েছে তা ছড়িয়ে দেয়ার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

সমাপনী বক্তব্যে আলহা্বি মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, মদিনা মসজিদ, সিরাজুল ইসলাম মাদরাসা ও ইসলামের সকল কার্যক্রম আমরা শুধুমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য করে যাচ্ছি। এলাকার সকল অবহেলিত, বঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন এবং ইসলামী জীবন বিধান মতে জীবন পরিচালনা করার আহবান জানান। – বিজ্ঞপ্তি