জাপানের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ফুমিও কিশিডা। ছবি: ইন্টারনেট        

খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : আজ পার্লামেন্টের বিশেষ অধিবেশনে ভোটে জিতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন ফুমিও কিশিডা।

সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিশিডা মতৈক্যের ভিত্তিতে চলা পছন্দ করেন। জাপানের ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি কিশিডাকেই পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে বেছে নিয়েছে। এখন পার্লামেন্টে আস্থাভোট জিততে হবে তাকে। তবে পর্লামেন্টে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। তাই তার প্রধানমন্ত্রী পদে বসা এখন সময়ের অপেক্ষা।

কিশিডা জাপানের একশতম প্রধানমন্ত্রী হবেন। তিনি সুগার স্থলাভিষিক্ত হবেন। সুগা আসন্ন ভোটে দলকে নেতৃত্ব দিতে চাননি। করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থতার জন্য সুগার জনপ্রিয়তা কমে গেছিল।

নতুন প্রধানমন্ত্রীর কাছে সব চেয়ে বড় প্রত্যাশা হলো, তিনি করোনাকালে চাপের মধ্যে থাকা অর্থনীতির হাল ফেরাবেন।

কিশিডা বলেছেন, তিনি আর্থিক সংস্কারের কাজ চালিয়ে যাবেন। তিনি এই বছরের শেষে ৩০ ট্রিলিয়ান ইয়েনের বিশেষ প্যাকেজও দিতে চান। এই প্যাকেজের ফলে অর্থনীতি আবার চাঙ্গা হবে বলে তার আশা।

তিনি নিও-লিবারালিসম থেকে সরে নিউ জাপানি ক্যাপিটালিজমের দিকে দেশকে নিয়ে যেতে চান। কর ব্যবস্থার সংস্কার করে তিনি মানুষের হাতে আরো অর্থ তুলে দিতে চান।

আগামী ২৮ নভেম্বর জাপানে নির্বাচন। সেখানে কিশিডা তার দলকে নেতৃত্ব দেবেন।