কাউখালী প্রতিনিধি : পিরোজপুরের কাউখালীতে বাল্যবিবাহ পড়ানোর অভিযোগে রেজিস্টার কাজিকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার (৭ অক্টোবর) উপজেলার পারসাতুরিয়া গ্রামের শহিদুল ইসলামের মাদ্রাসা পড়ুয়া (১৬) মেয়েকে রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার হানিফ আলী ছেলে ইছারব হোসেনের সঙ্গে বিবাহ দেন।

মেয়ের বিবাহের বয়স না হওয়ায় অত্র ইউনিয়নের কাজী হাবিবুর রহমান বাল্যবিবাহ পরানো ও খাতায় রেজিস্ট্রি করার অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত শুক্রবার রাতে কাজির বিরুদ্ধে ১০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড এবং লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশ করেছে।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন কাউখালী উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ খালেদা খাতুন রেখা। মেয়ের বারার কাছে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে যেন মেয়ের বয়স ১৮ বছর হলে মেয়েকে শশুর বাড়ি পাঠায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ খালেদা খাতুন রেখা বলেন, বাল্যবিবাহ রোধে প্রতিটি এলাকায় গণসচেতনতা তৈরি করতে হবে। বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে সরকার কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।