কাউখালী প্রতিনিধি : পিরোজপুরের কাউখালীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেল এক স্কুলছাত্রী।

জানা গেছে, উপজেলার সুবিদপুর গ্রামের শিপন হাওলাদারের স্কুল পড়ুয়া মেয়ের (১৫) সাথে একই উপজেলার পারসাতুরিয়া গ্রামের রজিম শিকদারের ছেলে সজীব শিকদারের সাথে শুক্রবার বিবাহের অনুষ্ঠানটিকতা চলছিল।

গোপন সংবাদ ভিত্তিতে, কাউখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ খালেদা খাতুন রেখা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিবাহ বন্ধ করে দেয়।

উভয়পক্ষকে ২০০০০/- টাকা অর্থদণ্ড প্রদান এবং ১৮ বছরের আগে বিয়ে না দেওয়ার বিষয়ে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া জন্ম নিবন্ধন সনদ জালিয়াতির সাথে সম্পৃক্ততা থাকার জন্য দু’জনকে ২০০০/- টাকা করে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।