নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা : নারায়ণগঞ্জের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সিদ্ধিরগঞ্জ কাঁচপুর ব্রিজের মুখে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে অটোচালকসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। কাঁচপুর ব্রিজের পশ্চিম পাশের ঢালে শিমরাইল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আজ রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে একজন যাত্রী এবং চালকসহ বাকী ৪ জন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মারা যান।

আহতদেরকে মদনপুরের আল-বারাকা ও সিদ্ধিরগঞ্জের প্রো-অ্যাকটিভ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

নিহতদের মধ্যে ৪ জনের পরিচয় মিলেছে। তারা হলেন, অটোচালক আবু হানিফ (২৫), যাত্রী মামুন (২৫), নুরুদ্দিন (৪৫) ও জামাল মিয়া (৪২)। আরেক জনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তার বয়স অনুমানিক ৩৫ বছর।

এছাড়া এ দুর্ঘটনায় আরও ৫ জন আহত হন।

নিহত মামুন স্থানীয় একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকের কাজ করতো। নিহত অটোচালক আবু হানিফ কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর থানার পাটুলি ও মামুন ঝালকাঠি সদর থানার বাসিন্দা গ্রামের বলে জানা গেছে।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ওসি) মো. বাচ্চু মিয়া এ খবর বাসসকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আজ রোববার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর মুমূর্ষু অবস্থায় তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ৪ জনকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের জন্য চার জনের মরদেহ ঢামেক হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ৮ জন যাত্রী নিয়ে নারায়ণগঞ্জের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কাঁচপুর ব্রিজে উল্টো পথে যাচ্ছিল অটোরিকশাটি। হঠাৎ ঢাকাগামী একটি মাইক্রোবাস অটোরিকশাটিকে ধাক্কা দেয়। এসময় অটোতে থাকা একজন ঘটনাস্থলে নিহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন ও পথচারীরা গুরুতর আহত অবস্থায় ৪ জনকে ঢামেকে নিয়ে আসেন। তাদেরকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহত মামুনের ছোট ভাই নাইমুল ইসলাম সুমন জানান, নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ আদমজী এলাকায় থাকতেন মামুন। স্থানীয় একটি পোশাক কারখানার লাইন চিফ ছিলেন তিনি। সকালে মামুন একাই তার বাসা থেকে কাঁচপুরে ছোট ভাইয়ের বাসায় যাচ্ছিলেন।

অটোচালক আবু হানিফের ছোট ভাই মো. রতন জানান, যাত্রাবাড়ী থানা সংলগ্ন এলাকায় পরিবারের সাথে থাকতেন হানিফ।

এদিকে, কাঁচপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নবীর হোসেন জানান, আজ সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর ব্রিজের ঢাকামুখী লেনে একটি অটোরিকশা উল্টোপথে যাচ্ছিল। এ সময় ঢাকামুখী একটি হাইস মাইক্রোবাসের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলে অটোরিকশার এক যাত্রী নুরুদ্দিন (৪৫) মারা যান। গুরুতর আহত ৪ জনের হাত-পা ও মাথা থেতলে গেছে।

কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ জানান, এ ঘটনার মাইক্রোবাসটিকে জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক পালিয়ে গেছে।