বগুড়া অফিস : দেশের করোনা হটষ্পট খ্যাত বগুড়ায় বরাদ্দ না থাকায় করোনা ভাইরাসের টিকা প্রদান বন্ধ হয়ে গেছে। ৬ মে থেকে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল, বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং বগুড়া পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে করোনা ভাইরাসের টিকা প্রদান করা আপাতত হচ্ছে না।

তবে, বগুড়া জেলার অন্যান্য উপজেলাতে মজুদ থাকা পর্যন্ত টিকা প্রদান কার্যক্রম চালু থাকবে। উপাজেলাতে টিকা শেষ হয়ে গেলে সেখানেও টিকা প্রদান বন্ধ থাকবে। বগুড়া জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ বলেছে, করোনার টিকা পাওয়া মাত্রই পুনরায় টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে।

বগুড়া জেলার সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত এলাকা বগুড়া সদর উপজেলা। বগুড়া সদর উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়ের তত্ত¡াবধানে উল্লেখিত তিনটি কেন্দ্রে টিকাদান কার্যক্রম সচল ছিল। কিন্তু, বরাদ্দ ৫ মে থেকে শেষ হয়ে যাওয়ায় আপাতত স্থগিত করা হযেছে।

বগুড়া সদর উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ সামির হোসেন মিশু জানান, চলতি বছরের ৭ ই ফেব্রæয়ারি থেকে করোনা টিকার ১ম ডোজ প্রদান শুরু হয়। টীকা গ্রহীতা বেশী হওয়ায় বিভিন্ন উপজেলা থেকে সংগ্রহ করে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত ৩৭ হাজার ২৮০ জন কে টীকা প্রদান করা হয়।

৮ এপ্রিল থেকে ২য় ডোজ এবং ১ম ডোজ প্রদান কার্যক্রম যুগপৎভাবে শুরু হয়। ৫ মে পর্যন্ত নতুন ভাবে ১ হাজার ৮০২ টি ১ম ডোজ এবং ২৭ হাজার ৩৮ টি ২য় ডোজ প্রদান করা হয়। এ যাবৎ ৬৬ হাজার ১২০ জন কে টীকা প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে নারী ২৬ হাজার ৬৪৯ জন এবং পুরুষ ৩৯ হাজার ৪৪৭১ জন। ৬ মে থেকে পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত এই ৩ টি টীকাদান কেন্দ্রে টীকা প্রদান আপাতত বন্ধ থাকবে।