ফিরেছে কোলাকুলির সেই চিরচেনা দৃশ্য। ফাইল ছবি

খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : করোনাভাইরাসের কারণে দুই বছর ধরে নানা বিধিনিষেধ থাকার পর বিশ্ব জুড়ে আবার পরিপূর্ণভাবে উদযাপিত হচ্ছে মুসলিম সমাজের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর।

সকালে ঈদের জামায়াতের মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন শুরু হয়েছে। কিন্তু গত চারটি ঈদের সঙ্গে এবার পার্থক্য গত দুই বছরের মতো এবার ঈদের জামায়াত শুধুমাত্র মসজিদের ভেতরে সীমাবদ্ধ থাকেনি। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আগের মতোই খোলা ময়দানে ঈদের জামায়াতে অংশ নিয়েছেন মুসল্লিরা। দুই বছর পরে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে এবার ঈদের প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এবার দেশের সবচেয়ে বড় দু’টি জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ ময়দান ও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে।

বৈরি আবহাওয়ার মধ্যেও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদের জামাতে অংশ নিয়েছেন লক্ষাধিক মানুষ। গত দুই বছর এখানে জামাত হয়নি।

ফিরেছে কোলাকুলির সেই চিরচেনা দৃশ্য। করোনাভাইরাসের কারণে গত দুই বছর ঈদের নামাজের পর কোলাকুলি করার সামাজিক প্রথা দেখা যায়নি। করোনার প্রকোপ কমে আসায় এবার আবার সেই দৃশ্যও ফিরে এসেছে।

ঢাকার কলাবাগানে সকালে ঈদের জামায়াতে অংশ নিয়েছেন আবুল মনসুর আহমেদ। তিনি বলেন, করোনা শুরুর প্রথম বছর তো মসজিদে জামায়াতই হয়নি। গত বছর নামাজ পড়তে গিয়েছিলাম, তারপর বাসায় চলে এসেছি। ঈদ উৎসবের যে আমেজ, যে পরিবেশ-সেটা ছিল না। বাসায় মেহমানদেরও তেমন আসতে বলিনি। কিন্তু এবার সবার সাথে কোলাকুলি হলো, বাসায় সেমাই-মিষ্টি খাওয়া হলো। সব কিছু আগের মতো লাগছে।

ঢাকাসহ সারাদেশে আগে থেকেই বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস ছিল। ঢাকায় যদিও ১০টার মধ্যেই ঈদের জামায়াত হয়েছে, কিন্তু ময়মনসিংহ, নোয়াখালী, বরিশালের অনেক স্থানে বৃষ্টির কারণে ঈদের জামায়াত দেরিতে হয়েছে। কোথাও কোথাও ঝড়ো-বৃষ্টির কারণে খোলা ময়দানে মুসল্লিরা ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেননি।