আঞ্জুমান আরা খান

সারথী আমার, জানো কি? এখনও আমি
আধখানা চাঁদের পাশে নক্ষত্রের
নীলাভ আলো দেখি পরম ভালোবেসে!
ভাবনার জগৎ তোলপাড় হয় যখন ভাবি, সন্ধ্যাতারা কেন শুকতারা হয় রাত্রিশেষে!
ভোরের পাখির তানে এখনও শর্তহীন ভালোবাসার অলিক আহ্বান…
ঝাউগাছগুলো এখনও শ্যামল-সবুজ
তারুণ্যে অম্লান!
শুধু তুমি নেই! তুমি নেই সারথী!
দখিনের বারান্দায় বয়ে যায়
হিমশীতল হাওয়া অবিরত…
কিন্ত টবের বাগানে তোমার প্রিয় বেলী ফুলের সুবাস
এখন আমার নিঃসঙ্গতার ক্ষরণে ক্ষত!
তোমার অভিমান, অভিযোগের প্রতিচ্ছবি
হৃদয়াঙিনায় তুলে রেখেছি বড় বেশি যত্ন করে!
এখন আমার কলাবতী-দূপুর,মাধবীলতা-সন্ধ্যা
কিংবা আসক্তি নেই একটি শিউলিঝরা-ভোরে!
তবে জানো কি সারথী?
এখনও আমি প্রেমে পড়ি একটি ভালো কবিতার!
এখনও প্রেমে পড়ি কোন তীক্ষ্ণ প্রতিভার!
আবেগতাড়িত হই একটি নিখাত ভালোবাসার।
তোমার এলোচুল কিংবা চুলবিন্যাসে
বকুলের মালা এখনও আমার একটি অনাহূত আবদার!
আমি কান পেতে শুনতে চাই তোমার পদচারণার
অস্ফুট আওয়াজ!
বুক পেতে অনুভব করতে চাই তোমার তপ্ত প্রশ্বাস!
আমি ভুল করেও ভুলতে চাই না তোমাকে ঘিরে
যাপিত সময়ের এতটুকু ক্ষণ!
আমার প্রত্যাখ্যাত স্বপ্নেরা মাথা খুঁটে আমার নির্ঘুমরাতের দেয়ালে!
ঘোর কেটে গেলে নিপিড়িত হই
ভালোবাসি কথাটি আজও বলা হয়নি বলে!
অবশেষে জানতে চাও সারথী, কেমন আছি?
মুখ লুকাবো না গাঢ় অভিমানে,কষ্ট লুকিয়ে মেঘের আড়ালে,
ভেসে আছি তব অজানা খেয়ালে!
তুমি ছাড়া ভালো থাকি বলো
আমি কেমন করে?