খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : উত্তরায় বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের একটি গার্ডার প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে একই পরিবারের পাঁচজন নিহতের ঘটনায় পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট আবেদন করেছেন সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী৷

রিটকারী আইনজীবী জাকারিয়া খানের পক্ষে আইনজীবী এবিএম শাহজাহান আকন্দ মাসুম বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই আবেদন করেন৷

শাহজাহান আকন্দ মাসুম গণমাধ্যমকে বলেন, রিটে নিহত প্রত্যেক ব্যক্তির জন্য ক্ষতিপূরণ বাবদ এক কোটি টাকা করে মোট পাঁচ কোটি টাকা চাওয়া হয়েছে৷

পাশাপাশি বিআরটি গত পাঁচ বছরে চলমান উন্নয়ন প্রকল্পে কী ধরনের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে, সে বিষয়ে একটি প্রতিবেদন তলব করার আদেশ চাওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি৷

আইনজীবী মাসুম জানান, দেশের সকল উন্নয়ন প্রকল্পে জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিষয়েও নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে তাদের রিট আবেদনে৷

বুধবার বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ রিটের শুনানি হতে পারে বলে জানান তিনি৷

ঢাকা-ময়মনিসংহ মহাসড়কের উত্তরায় জসীম উদ্দীন রোডের মাথায় প্যারাডাইস টাওয়ারের সামনে সোমবার বিকালে বিআরটি প্রকল্পের একটি বক্সগার্ডার ট্রেইলারে তোলার সময় ভারসাম্য হারায় ক্রেইন৷ বিপুল ওজনের কংক্রিটের গার্ডারটি টঙ্গীমুখী সড়কে চলমান একটি প্রাইভেট কারের ওপর পড়ে৷ ভারী ওই গার্ডারের চাপে মুহূর্তের মধ্যে চ্যাপ্ট হয়ে যায় গাড়িটি৷ তাতে গাড়ির আরোহী ৭ যাত্রীর মধ্যে গাড়ির ভেতরেই ৫ জনের মৃত্যু হয়। দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়৷ আহত ও নিহতরা সবাই এক পরিবারের সদস্য৷

ওই ঘটনায় নিহতদের পরিবার উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি মামলা করেছে৷ চীনা ঠিকাদার কোম্পানি, ক্রেইন চালক এবং প্রকল্পের নিরাপত্তার দায়িত্বপ্রাপ্তদের অবহেলায় এই প্রাণহানি হয়েছে বলে সেখানে অভিযোগ করা হয়েছে৷