নিজস্ব প্রতিবেদক : অনলাইন মাধ্যমে বিজনেস করার একটি সুযোগ্য প্লাটফর্ম এন্টারপ্রিনার্স কিংডম অব বাংলাদেশ-ইকেবি। যার যাত্রা শুরু হয় গত ১৪ মে ২০২০ হতে। মাত্র দুইশ’ সদস্য নিয়ে যার পথচলা শুরু হয়ে বর্তমানে তার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজারে।

অনলাইনভিত্তিক এই জনপ্রিয় গ্রুপটিতে নিজ নিজ উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছেন হাজার হাজার উদ্যোক্তা। সম্পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাসের সাথে শুধু দেশেই না, বিশ্বের নানা দেশ থেকে থেকে কেনা-বেচা করেন উদ্যোক্তারা। উদ্যোক্তাদের অনলাইন মাধ্যমে বিজনেস করার জন্য একেবারে বেসিক ও ক্ষুদ্র থেকে বৃহত্তর সব ধরনের দিকনির্দেশনা দিয়ে থাকেন ইকেবির কর্ণধারগণ।

গত ১৩ মে ইকেবির দ্বিতীয় জন্মদিন ও ঈদ পরবর্তী মিলনায়তনের আয়োজন করা হয় নারায়ণগঞ্জ জেলার প্রাণকেন্দ্র চাষাড়ার মোঘল-ই-আযম রেস্টুরেন্টে। যেখানে দেশের বিভিন্ন জেলার উদ্যোক্তারা অংশ নেন উচ্ছ্বাস নিয়ে। বরাবর ইকেবির উদ্যোক্তাগণ নানারকম মিলনমেলা অত্যন্ত আনন্দ সহকারে উপভোগ করেন বলেই জানা গিয়েছে। এই অনুষ্ঠানের সম্পূর্ণ আয়োজন অত্যন্ত সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার দায়িত্ব পালন কছেছেন ইকেবির এডমিন প্যানেল।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খোলাবার্তা২৪ ডটকম সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান ও ইকেবির উপদেষ্টা ডালিম সাইফুদ্দিন।

ইকেবির পরিচালক ও এডমিন ইসমত আরা মুন্নির উপস্থাপনায় অনুষ্ঠান শুরু হয়। অতিথি মোস্তাফিজুর রহমান অনুষ্ঠানে উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন এবং তিনি ইকেবির উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা করবেন বলে জানান।

ইকেবি সবসময় উদ্যোক্তাদের পাশে দাঁড়ায় নানা ধরণের মোটিভেশনাল উদ্যোগের মধ্য দিয়ে। কিংডমের প্রতিষ্ঠাতা ও এডমিন সৌরভ খান আগত অতিথিদের সামনে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন ‘উদ্যোক্তা হিসেবে টিকে থাকতে হলে কিছু থিম নিয়ে কাজ করে এগিয়ে যেতে হবে এবং তার জন্য লেখাপড়া করতে হবে। তা না হলে একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়া অসম্ভব।’ তিনি উদ্যোক্তাদের জন্য সহজ ভাষায় নিয়মিত ডিজিটাল মার্কেটিংসহ উদ্যোক্তাদের টিপসসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখালেখি করেন যাতে তারা তাদের বিজনেসে এই স্কিল কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যেতে পারেন। উদ্যোক্তাদের প্রফেশনাল হতে হলে কোন কোন বিষয়ে জোড় দিতে হবে বা ইমপ্রুভ করতে হবে সে সম্পর্কেও বিস্তারিত পরামর্শ দেন তিনি। সবশেষে সবাইকে এক হওয়ার পরামর্শ দেন। ইতোপূর্বে ইকেবি উদ্যোক্তাদের প্রফেশনাল করতে নানারকম প্রশিক্ষণের আয়োজন করেছিলেন এবং ভবিষ্যতেও এই বিষয়ে নিয়মিত জোড়ালোভাবে কাজ করবেন বলে জানান সৌরভ খান। প্রশিক্ষণ ছাড়া কেন কাজ সুষ্ঠু ও নিখুতভাবে করা যায় না বলে তিনি মনে করেন।

এডমিন প্যানেলের অভিজ্ঞ মডারেটররাও তাদের গুরুত্বপূর্ণ কথা উপবিষ্ট উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন।

ইকেবির পরিচালক ও এডমিন ইসমত আরা মুন্নি তার বক্তব্যের শুরুতে ইকেবির এই দুই বছরে মোট ১৮ জন লাখপতি খেতাবপ্রাপ্ত উদ্যোক্তার নাম ঘোষণা করেন। তিনি গত ঈদুল ফিতরে মাসব্যাপী আয়োজিত ঈদ ওয়েভের সেরা ক্রেতা ও বিক্রেতাদের নাম ঘোষণাও করেন।

আগত অতিথিবৃন্দদের জন্য ইকেবির পক্ষ থেকে এবং উপস্থিত বিভিন্ন উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে স্পন্সরকৃত তাদের উদ্যোগের পণ্য উপহার প্রদান শেষে কেক কেটে অনুষ্ঠানটি সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।