নিজস্ব প্রতিবেদক : আমরা কুমিল্লাবাসী কুমিল্লা নামে বিভাগ চাই। আমরা ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত, শচীন দেব বর্মনের উত্তরসূরী। আমরা কুমিল্লা নামেই থাকবো এবং কুমিল্লা নিয়েই এগিয়ে যাব। আয়নামতি বা ময়নামতি না কুমিল্লা নামেই বিভাগ চাই।

এমন দাবি উঠে আসে কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা (সিজেএফডি) আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিল পূর্ব আলোচনায়। শুক্রবার (২২ এপ্রিল) এক ইফতার ও দোয়া মাহফিল পূর্ব আলোচনায় বক্তারা কুমিল্লা নামেই বিভাগ ঘোষণার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি দাবি জানিয়েছেন।

রাজধানীর বিজয়নগরে হোটেল ৭১-এ আয়োজিত এই ইফতার পূর্ব আলোচনায় সংগঠনের সভাপতি মো. শরীফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. সাজ্জাদ হোসেনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য দৈনিক প্রভাত সম্পাদক মোজাফফর হোসেন পল্টু, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন জাতীয় কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, ল্যাবএইড গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এ. এম শামীম, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, একাত্তর টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোজাম্মেল বাবু, দৈনিক সংবাদের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কাশেম হুমায়ূন, আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মঈন উদ্দিন আহমেদ, এক্সিম ব্যাংকের পরিচালক আব্দুল্লাহ আল জহির স্বপন ও মুরাদনগর উপজেলা চেয়ারম্যান আহসানুল আলম সরকার কিশোর।

বক্তারা বলেন, গণমাধ্যম সমাজ ও রাষ্ট্রের উন্নয়নের বৃহৎ অংশীদার। ইতিবাচক সাংবাদিকতা জাতিকে সঠিক দিক নির্দেশনা দেয়ার পাশাপাশি সমাজ পরিবর্তনে ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারে। তারা কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরামের সদস্যদের দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হয়ে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার মাধ্যমে কুমিল্লা তথা দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখার আহবান জানান।

বক্তারা ঢাকায় কর্মরক কুমিল্লার সাংবাদিকদের তাদের লেখনীর মাধ্যমে জেলার সমস্যা, সম্ভাবনার কথাগুলো তুলে ধরে কুমিল্লার বিভাগ বাস্তবায়ন, ঢাকা-কুমিল্লা সরাসরি রেললাইন স্থাপনসহ ওই অঞ্চলের উন্নয়নকে তরান্বিত করার আহবান জানান।

ইফতারের আগে সিজেএফডি’র সদস্য প্রয়াত শামসুল আলম বেলাল, সাবেক সভাপতি হুমায়ুন কবির খোকন, সদস্য মমতাজ উদ্দিন, বদিউল আলম, আব্দুল হাই স্বপন ও হাবিবুর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

সংগঠনে নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাঈদ আহমদ খান, শহীদুল ইসলাম, ফারুক খান, আবু তাহের, হালিম মোহাম্মদ, দিদারুল আলম, এম. মোশাররফ হোসাইন, মঈনুল আহসান, সায়ীদ আবদুল মালিক, খন্দকার আলমগীর হোসেন, আবু নাছের, সালাহ উদ্দিন জসিম, সাইফুল ইসলাম, তাহমিনা আক্তার, কমল চৌধুরী, মো. ফখরুল ইসলাম, মাহমুদুল হাছান নাযিম, নার্গিস জুঁই, সোলাইমান সালমান, মোহাম্মদ মাসুদ, মো. শরীফুল ইসলাম, ইমরান মাহফুজ, শাহাদাত হোসেন রাকিব, মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, এ কে সালমান, জহিরুল ইসলাম রাজ-সহ আরও অনেকে।