আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার উথরাইল আকন্দ পাড়ায় এরমান হোসেন মিশু (২০) নামের এক যুবকের রহস্য জনক মৃত্যু ঘটেছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, মিশু গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মিশু মৃত আশরাফ আকন্দের ছেলে।

মিশুর মা সেলিনা বেওয়া জানান তাঁর ২ ছেলে ১ মেয়ে। মিশু ছেলেদের মধ্যে দ্বিতীয়। মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। মা, বড় ছেলে রাশেদ, রাশেদের স্ত্রী ঋতু ও ছোট ছেলে মিশু একই বাড়িতে থাকেন। বড় ছেলে রাশেদ আলাদা অন্নে খান।

মিশু ইনটারনেটে আউট সোর্সিং এর কাজ করেন। তাই অনেক রাতে ঘুমিয়ে পরদিন বিকেলে ঘুম থেকে উঠেন।

মঙ্গলবার বিকেল গড়িয়ে গেলেও ঘুম থেকে না উঠলে তার ভাবী ঋতু তাঁর দরজায় ডাকাডাকি করেও কোন সাড়া-শব্দ না পেলে দরজার ফুটো দিয়ে দেখতে পান মিশু সিলিং ফ্যান এর সাথে গলায় দড়ি দিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান গলায় দড়ি দিলেও চৌকির উপর মিশুর হাঁটু লাগানো ছিলো। এ দৃশ্য দেখে এলাকাবাসির সন্দেহের উদ্রেক হয়েছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হবে বলে ওসি জালাল উদ্দিন জানিয়েছেন।