মো: সামছুল আলম, আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : আদমদীঘিতে এক খামারে প্রায় ১শ ১০টি হাঁস মেরে ফেলেছে শেয়াল। খামারি রুবেল জানান, খাকি ক্যাম্বেল হাঁসগুলোর মূল্য প্রায় ২৫ হাজার টাকা।

এতোগুলো হাঁস এক সাথে বিনষ্ট হওয়ার রুবেল শোক সামলাতে পারছেন না। হাঁসগুলো বিনষ্ট হবার কথা বলতে বলতে রুবেল কান্নায় ভেঙে পড়েন। রুবেল আদমদীঘি রেল ষ্টেসনের পূর্ব পাশে সুদিন রেল ব্রীজের নিকট হাঁসগুলো নিয়ে অবস্থান করছিলেন।

১৮ জুন দিবাগত রাতে রুবেল ও তাঁর সহকর্মীরা প্রায় ১৫ শত হাঁস ঘরে তুলে প্রতিদিনের মতো ঘুমিয়ে যায়। ভোর রাতে তারা হাঁসগুলোর চিৎকার শুনে যেয়ে দেখেন শেয়ালগুলো ঘরে ঢুকে প্রায় ১শ টি হাঁস মেরে ফেলেছে । তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে শেয়ালগুলো পালিয়ে যায়।

রুবেল জানায় সে নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার কালীনগর গ্রামের রহম আলীর ছেলে। তাঁরা ৪ জন একত্রে ভ্রাম্যমান হাঁসের খামার পরিচালনা করেন। তাঁরা বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে মুক্তভাবে হাঁসগুলো চরিয়ে বেড়ান। এতে হাঁসের পেছনে কোন খাবার খরচ লাগে না। হাঁসগুলো শামুক, ঝিনুক, ঘাস-লতাপাতা, জমিতে পড়ে থাকা ধান ও ব্যাং ও বিভিন্ন ধরনের কীট-পতঙ্গ খেয়ে তাদের খাদ্য চাহিদা মেটায়। প্রায় ১০/১২ দিন পূর্বে তারা চলন বিল এলাকায় হাঁসগুলো চরিয়ে সবে মাত্র আদমদীঘি এলাকায় এসেছেন। এরই এক পর্যায়ে শনিবার রাতে এ দূর্ঘটনায় তাঁরা এ ক্ষতির সম্মুখিন হলো।