খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজকের দিনে আল্লাহতায়ালার কাছে আমরা প্রার্থনা করেছি- আল্লাহতায়ালা যেন এ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন। এ দেশের মানুষের ১৯৭১ সালের যে চেতনা, একটি সঠিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা, তা করতে যেন তিনি সুযোগ করে দেন।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, আমরা জানি কুরবানির মাধ্যমে আমরা ত্যাগ স্বীকার করে মানুষের কল্যাণে কাজ করি। কিন্তু দুর্ভাগ্য আমাদের, আমরা এমন একটি সময় ঈদুল আজহা পালন করছি- যে সময়টা আমাদের প্রিয় দেশনেত্রী খালেদা জিয়া কারারুদ্ধ হয়ে আছেন। যিনি সারা জীবন দেশের কল্যাণে ত্যাগ করে গেছেন, গণতন্ত্রের জন্য কাজ করেছেন। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আজ নির্বাসিত হয়ে আছেন। আজ মিথ্যা মামলায় মানুষ গুম হয়ে যাচ্ছে- এমন একটা অবস্থা বাংলাদেশে বিরাজ করছে।

পবিত্র ঈদুল আজহার দিনে বুধবার শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি মরহুম জিয়াউর রহমানের মাজারে বিএনপির স্থায়ী কমিটির পক্ষ থেকে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, দোয়া ও মোনাজাত শেষে মির্জা ফখরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা আজ এই জিয়ারতের সময় পরম করুণাময় আল্লাহর কাছে এই দোয়া করেছি- আল্লাহতায়ালা যেন এই ভয়াবহ মহামারি থেকে, বিশেষ করে বাংলাদেশে এই সরকারের উদাসীনতায় মানুষের জীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে, সে সময় যেন মহান রব্বুল আল-আমিন মানুষকে এই মহামারি থেকে রক্ষা করেন।

এরপর বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন নবী খান সোহেল-এর নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর দক্ষিন বিএনপি, যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর নেতৃত্বে যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটি, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল-এর নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবকদল জিয়ার মাজারে শ্রদ্ধা জানায়।

এ ছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তরের যুবদলের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টনের নেতৃত্বে মহানগর উত্তর যুবদলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।