বগুড়া অফিস : আইন-শৃংখলা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হওয়ায় বগুড়য় পুলিশের ১০ কর্মকর্তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে। এর মধ্যে সদর থানার একটি পুলিশ ফাঁড়ির ৪ জন কর্মকর্তা রয়েছেন। গতকাল রোববার বদলীকৃতদের ছাড়পত্র দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

বগুড়া পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী স্বাক্ষরিত আদেশ গত শনিবার জারী করা হয়েছে। বগুড়া সদর থানার স্টেডিয়াম পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যর্থ হওয়ায় এই ফাঁড়ির ৪ কর্মকর্তাকে এক সাথে বদলী করা হয়।

এর আগে ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমানকে বদলী করা হয়েছে কুমিড়া তদন্ত কেন্দ্র।

বদলীকৃতদের মধ্যে সদর থানার স্টেডিয়াম পুলিশ ফাঁড়ির ৪ জনের মধ্যে এসআই হারুনুর রশিদকে বাগবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে, এসআই খোরশেদ আলম চন্দনবাইশা তদন্ত কেন্দ্র, এএসআই নবির উদ্দিনকে চন্দনবাইশা তদন্ত কেন্দ্র, এএসআই হাসান আলীকে কুমিড়া তদন্ত কেন্দ্রে বদলী করা হয়েছে।

এ ছাড়া স্টেডিয়াম পুলিশ ফাঁড়িতে বদলী করা হয়েছে চন্দন বাইশা তদন্ত কেন্দ্রের এসআই রুবেল সরকার, গাবতলী মডেল থানার এসআই শামীম আহম্মেদ, গাবতলী মডেল থানার এএসআই মিলন মিয়াকে। একই সাথে গাবতলী মডেল থানার এএসআই রেজেক আলীকে নন্দীগ্রাম থানায়, একই থানার এএসআই আমিনুল হককে কুমিড়া তদন্ত কেন্দ্রে, গাবতলী মডেল থানার এএসআই কাজেম আলীকে চন্দন বাইশা তদন্ত কেন্দ্রে বদলী করা হয়েছে।