চট্টগ্রাম ব্যুরো : গত ৬ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টায় চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁও থানার কাপ্তাই রাস্তার মাথা থেকে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর পরিচয়ে উঠিয়ে নেয়া হয় বোয়ালখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ মিয়ার সন্তান প্রবাসী আদিলুর রহমান সুজনকে (৩৫)। গত ৫ দিন হতে চললো তার সন্ধান পাননি তার পরিবার।

পরিবারের দাবি, তাকে অপহরণ করা হয়েছে। আজ সোমবার চট্টগ্রাম আদালতে এ বিষয়ে তার মা বুলবুল আক্তার বাদি হয়ে একটি কোর্ট জিডি করেছেন।

আদিলুর রহমান সুজনের মা বুলবুল আক্তার জানান, তার সন্তান চট্টগ্রাম নগরের মুরাদপুর এলাকায় এক বন্ধুর সাথে দেখা করতে যাওয়ার কথা ছিল। ৬টার দিকে বোয়ালখালীর ১০ নং আহলা করলডেঙ্গা এলাকায় তার বাড়ি থেকে বের হন। সাথে তার দুস্পর্কের আত্মীয় নাসির উদ্দিনের সাথে মোটরসাইকেল করে শহরের উদ্দেশ্যে রাওনা দেন। কাপ্তাই রাস্তার মাথায় পৌছলে ৭/৮ জন লোক মাইক্রোবাস থেকে নেমে তাকে টেনে-হিঁচড়ে সেখানে তুলে নেয়। এসময় নাসিরকে তারা আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর লোক বলে পরিচয় দেন।

সুজনের মা বলেন, সুজন দীর্ঘদিন ধরে বিদেশে আবুধাবীতে ব্যবসা করতেন। গত রমজান মাসে দেশে আসলে করোনার কারণে আর বিদেশে ফিরতে পারেননি। আগামী ১৬ অক্টোবর তার আবুধাবীতে চলে যাওয়ার কথা। এরমধ্যেই অপহরণের শিকার হলো।

তিনি বলেন, গত চারদিন ধরে র‌্যাব,পুলিশ, সিআইডি, ডিবিসহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করেছি। তার সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। ধারণা করছি, কোন সন্ত্রাসী গ্রুপ আমার সন্তানকে অপহরণ করেছে।

সুজনের স্ত্রী বলেন, আমার স্বামী যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। এলাকায় তার কোন শত্রু নেই। তাদের বড় মেয়ে সোহা (৮) প্রতিদিন বাবাকে খুঁজছেন। তাদের সাত মাসের সন্তান সুহাত বাবা বাবা করে ডাকছেন। ছেলে-মেয়েদের কোন জবাব দিতে পারছিনা। তিনি প্রশাসনের কাছে স্বামীর সন্ধান চেয়েছেন।