মিজানুর রহমান মিজান, রংপুর অফিস : প্রেমের ফাঁদে ফেলে অন্তরঙ্গ ছবি ধারণ করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়া চক্রের সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশের এক কর্মকর্তার স্ত্রীকে আটক করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার পুলিশ।

আটককৃতের নাম কানিজ ফাতিমা। তার স্বামী পুলিশের রংপুর রেঞ্জের একজন কর্মকর্তা।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার পুলিশ বলেছে বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। এখনই কিছু বলা যাবে না। তদন্ত শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।

আটককৃত পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রী কানিজ ফাতিমাকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর কলেজ রোড বীকন মোড় এর ভাড়া বাসা থেকে আটক করে পুলিশ।


কানিজ ফাতিমা      

জানা যায়, রংপুর মহানগরীর বিভিন্ন ব্যক্তিকে টার্গেট করে তাদের সাথে পরিচিত হয়ে তাকে কৌশলে নিজেদের আস্তানায় নিয়ে যেত একটি চক্র। এরপর সেখানে অশ্লীল ছবি তুলে জিম্মি করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় করা হতো।

এ ছাড়াও হত্যার ভয় দেখিয়ে বলপূর্বক অর্থ আদায়, স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর গ্রহণ, চুরি এবং ভয়ভীতি প্রদর্শন করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিত চক্রটি।

এর আগে গত রোববার রাতে মোঃ শাহারুখ করিম অনিক (৩৪) ও তার স্ত্রী মোছাঃ আসমানী আক্তারকে (২৪) গ্রেফতার করে র‌্যাব। তাদের ৬তলা বাসায় টর্চার সেল আবিস্কার করে। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে মেট্রোপলিটন কোতয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, আটক কানিজ ফাতেমার স্বামী রংপুর রেঞ্জ পুলিশের একজন কর্মকর্তা। তবে এখনই আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলা যাবে না। তদন্ত শেষে পরে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে বলে জানান তিনি।